Categories
স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

টিন-এজ প্যারেন্টিংকে সহজ করতে ৭টি টিপস : @Dr. Shusama Reza | LifeSpring

টিন-এজ প্যারেন্টিং (১৩ থেকে ১৯ বছর বয়সসীমা) সব জেনারেশনেই চ্যালেঞ্জিং ছিল এবং থাকবে।

আমরা আমাদের টিন-এজড সন্তানদের নিয়ে অনেক আশঙ্কা করি কারন একটা ভুল সিদ্ধান্ত, ভুল জীবনাচরণ কিভাবে জীবনের পথ থেকে একজন মানুষকে ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিতে পারে – এরকম অজস্র ঘটনা দেখার অভিজ্ঞতা আমাদের আছে।

আমাদের সন্তানদের পাল্টা যুক্তি আছে কিন্তু এই অভিজ্ঞতাটা নেই! দূরদর্শিতাটা নেই। তাই আমাদের ভয়, আশঙ্কা সন্তানদের চোখে অমূলক। এভাবেই দূরত্বটার শুরু হয়।

আরেকটা ব্যাপার হলো, এটা শেকল ভাঙ্গারই বয়স। নিয়ম আর শাসনের বেড়াজালে বেঁধে ফেলার চেষ্টা আমাদের থাকেই। বিশেষভাবে খেয়াল করা হয়না যে, এই প্রসেসে আমাদের সন্তান ভালোবাসাহীনতাই বেশি অনুভব করে কীনা।

দরকার একটা ব্যালেন্স।

নিজেদের মাঝে কিছু পরিবর্তন অভিভাবক হিসেবে এই সময়ে আমাদের সাহায্য করতে পারে। খুব সংক্ষেপে ৭টি টিপস দিচ্ছি।

🟩বাচ্চাদের যেকোনো আচরণগত সমস্যায় লাইফস্প্রিং-এর অভিজ্ঞ সাইকিয়াট্রিস্ট বা সাইকোলোজিস্টের সাথে অ্যাপয়েনমেন্ট নিতে পারেন।

• 09638 505 505 | 01776 110 510 | ২৪ ঘন্টা

• WhatsApp: 01763 438148

• পজিটিভ প্যারেন্টিং শিখতে যোগ দিন আমাদের পজিটিভ প্যারেন্টিং কোর্সে।
https://www.lifespringint.com/courses/positive-parenting/

#lifespring #shusama_reza
—————————————–
Contact us-

• Website: https://www.lifespringint.com/
• Facebook: https://www.facebook.com/lifespringinstitute/
• Instagram: https://www.instagram.com/lifespringinstitute/
• LinkedIn: https://www.linkedin.com/company/lifespring/

——————————————-
Video Tags to Rank:

Leave a Reply

Your email address will not be published.