Categories
টেকনোলজি

গার্হস্থ্য বিজ্ঞান ২য় পত্র: ৯ম অধ্যায় MCQ


গার্হস্থ্য বিজ্ঞান ২য় পত্র ৯ম অধ্যায় mcq : জীবদেহের জীবনধারণ তথা বেঁচে থাকার জন্য খাদ্য অপরিহার্য। জীবজগতের অন্যান্য জীবের মতোই মানবদেহের জীবনধারণ, গঠন, বৃদ্ধি, তাপ উৎপাদন, কর্মক্ষমতা প্রদান, সুস্থতা রক্ষা প্রভৃতি কাজের জন্য খাদ্য প্রয়োজন হয়। খাদ্য গ্রহণের ফলে দেহে পুষ্টি সাধন হয়। আমরা বড় হই, চলাফেরা করতে পারি, কর্মক্ষম ও সুস্থ-সবল থাকতে পারি।

তবে একই খাদ্য সব ধরনের কাজ সুষ্ঠু ও সম্পূর্ণভাবে করতে পারে না। একেক ধরনের খাদ্য একেক ধরনের কাজ করে থাকে। রাসায়নিক গঠন ও প্রকৃতি অনুযায়ী খাদ্য উপাদান ৬ প্রকার। এগুলো হলো- ১। প্রোটিন বা আমিষ, ২। কার্বোহাইড্রেট বা শর্করা, ৩। ফ্যাট বা স্নেহ পদার্থ, ৪। ভিটামিন বা খাদ্যপ্রাণ, ৫। মিনারেল বা খনিজ লবণ বা ধাতব লবণ এবং ৬। পানি।

এসব খাদ্য উপাদানসমূহ সম্মিলিতভাবে কাজ করে দেহের স্বাভাবিক অবস্থা বজায় রাখে। খাদ্য উপাদানসমূহ মূলত কতগুলো জৈব বা অজৈব যৌগের সমন্বয়ে গঠিত। কার্বন, হাইড্রোজেন, অক্সিজেন ও নাইট্রোজেন মৌল দিয়ে গঠিত হয় এমাইনো এসিড। এক বা একাধিক এমাইনো এসিড সংযুক্ত হয়ে প্রোটিন অণু গঠিত হয়। কার্বন, হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন হলো শর্করা অণুর গঠন একক।

ফ্যাটি এসিড ও গ্লিসারল সমন্বয়ে ফ্যাট গঠিত হয়। ভিটামিন প্রধানত জৈব এবং খনিজ লবণ হলো অজৈব খনিজ পদার্থ। পানির গঠন উপাদান হল- হাইড্রোজেন ও অক্সিজেন। এসব খাদ্য উপাদানের দেহে অভাবজনিত লক্ষণ প্রকাশ পায়। খাদ্যে এদের দীর্ঘদিনের ঘাটতিতে নানাবিধ রোগ সৃষ্টিসহ মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

গার্হস্থ্য বিজ্ঞান ২য় পত্র ৯ম অধ্যায় mcq

১. কত মাস বয়সে শিশুদের দুধের পাশাপাশি পরিপূরক খাবারে অভ্যস্ত করতে হবে?
ক. দুই মাস
খ. তিন মাস
গ. চার মাস
● পাঁচ মাস

২. ১ গ্রাম ফ্যাট কত কিলোক্যালরি শক্তি উৎপাদন করে?
ক. ৫ কিলোক্যালরি
খ. ৬ কিলোক্যালরি
গ. ৮ কিলোক্যালরি
● ৯ কিলোক্যালরি

৩. অবস্থার ওপর ভিত্তি করে স্নেহজাতীয় খাদ্যকে কয় ভাগে ভাগ করা হয়?
● দুই ভাগে
খ. তিন ভাগে
গ. চার ভাগে
ঘ. পাঁচ ভাগে

৪. স্নেহপদার্থের গঠনগত বৈশিষ্ট্যের ওপর ভিত্তি করে কয় শ্রেণিতে ভাগ করা হয়েছে?
ক. দুই
● তিন
গ. চার
ঘ. পাঁচ

৫. স্নেহপদার্থের প্রধান অংশ কোনটি?
● ফ্যাটি এসিড
খ. কঠিন ফ্যাট
গ. যৌগিক ফ্যাট
ঘ. গ্লাইকো লিপিড

৬. অভ্যাবশ্যক ফ্যাটি এসিড কয়টি?
ক. ২টি
● ৩টি
গ. ৪টি
ঘ. ৫টি

৭. ডিমের কুসুম, বাদাম ও সোয়াবিন তেলে কোন এসিড পাওয়া যায়?
● লিনোলেইক এসিড
খ. লিনোলিনিক এসিড
গ. অ্যারাকিডোনিক এসিড
ঘ. ফ্যাটি এসিড

৮. যকৃতের তেলে ও প্রাণীদেহের ফসকো লিপিড অণুতে কোন এসিড পাওয়া যায়?
ক. লিনোলিনিক এসিড
● অ্যারাকিডোনিক এসিড
গ. লিনোলেইক এসিড
ঘ. ফ্যাটি এসিড

৯. অত্যাবশ্যকীয় ফ্যাটি এসিডের অভাব হলে কোন রোগ হয়?
● চর্মরোগ
খ. হাম
গ. ইনফ্লুয়েঞ্জা
ঘ. পোলিও

১০. অত্যাবশ্যকীয় ফ্যাটি এসিডের মধ্যে কোনটি সবচেয়ে বেশি প্রয়োজনীয়?
● লিনোলেইক
খ. লিনোলিনিক
গ. অ্যাবাকিডোনিক
ঘ. ফসকোলিপিড

১১. পুষ্টিবিজ্ঞানীদের মতে মোট ক্যালরির কত শতাংশ ফ্যাট থেকে গ্রহণ করতে হয়?
● ২০%-৩০%
খ. ২৫%-৩৫%
গ. ৩৫%-৪০%
ঘ. ৪০%-৪৫%

১২. দ্রাব্যতার গুণ বিচারে ভিটামিন প্রধানত কয় প্রকার?
● দুই প্রকার
খ. তিন প্রকার
গ. চার প্রকার
ঘ. পাঁচ প্রকার

১৩. চর্বিতে দ্রবণীয় ভিটামিন কয় প্রকার?
ক. তিন প্রকার
● চার প্রকার
ঘ. পাঁচ প্রকার
ঘ. ছয় প্রকার

১৪. চর্বিতে দ্রবণীয় ভিটামিন কোনটি?
● ভিটামিন ‘এ’
খ. ভিটামিন ‘বি’
গ. ভিটামিন ‘সি’
ঘ. থায়ামিন

১৫. পানিতে দ্রবণীয় ভিটামিন কয় প্রকার?
● দুই
খ. তিন
গ. চার
ঘ. পাঁচ

১৬. ভিটামিন ‘এ’ কোথায় জমা থাকে?
ক. ফুসফুসে
● যকৃতে
গ. হৃৎপিণ্ডে
ঘ. মেরুদণ্ডে

১৭. কোন ভিটামিন রোগ সংক্রমণ হতে রক্ষা করে?
● ভিটামিন ‘এ’
খ. ভিটামিন ‘সি’
গ. ভিটামিন ‘বি’
ঘ. ভিটামিন ‘ডি’

১৮. চোখের সাদা অংশের নাম কী?
ক. কর্নিয়াল জোরোসিস
● কনজাংটিভাল জেরোমিস
গ. বিটটস স্পোর্ট
ঘ. জারাটোম্যালেসিয়া

১৯. গর্ভবতী মাকে কোন ভিটামিন পর্যাপ্ত পরিমাণ খাওয়াতে হবে?
● ভিটামিন ‘এ’
খ. ভিটামিন ‘বি’
গ. ভিটামিন ‘সি’
ঘ. ভিটামিন ‘ডি’

২০. কোন ভিটামিনের অভাবে চোখের কার্নিয়া নিস্তেজ হয়ে পড়ে?
● ভিটামিন ‘এ’
খ. ভিটামিন ‘বি’
গ. ভিটামিন ‘সি’
ঘ. ভিটামিন ‘ডি’

২১. শিশুকে কত বছর পর্যন্ত বুকের দুধ খাওয়াতে হবে?
ক. ১ বছর
● ২ বছর
গ. ৩ বছর
ঘ. ৪ বছর

২২. পানিতে দ্রবণীয় ভিটামিন কোনটি?
ক. ভিটামিন ‘এ’
● ভিটামিন ‘বি’
গ. ভিটামিন ‘ডি’
ঘ. ভিটামিন ‘কে’

২৩. কোন ভিটামিন অস্থি ও দন্ত গঠনে সহায়তা করে?
ক. ভিটামিন ‘বি’
খ. ভিটামিন ‘সি’
গ. ভিটামিন ‘কে’
● ভিটামিন ‘ডি’

২৪. প্যারাথাইরয়েড গ্রন্থির কার্যকারিতা নিয়ন্ত্রণে কোন ভিটামিনের ভূমিকা রয়েছে?
ক. ভিটামিন ‘এ’
খ. ভিটামিন ‘বি’
গ. ভিটামিন ‘সি’
● ভিটামিন ‘ডি’

২৫. কোন খাদ্যে ভিটামিন ‘ডি’ পাওয়া যায়?
ক. দুধ
খ. মাছ
গ. সবজি
● মাংস

২৬. ভিটামিন ‘ডি’-এর অভাবে শিশুদের কোন রোগ হয়?
● রিকেট
খ. হাম
গ. রাতকানা
ঘ. আমাশয়

২৭. হাড়ের গঠন ও আকৃতি অস্বাভাবিক হয় কোন রোগ হলে?
ক. ম্যারাসমাস
● রিকেট
গ. হাম
ঘ. বসন্ত

২৮. কোন ভিটামিনের অভাবে মাথার খুলি বড় হয়?
ক. ভিটামিন ‘এ’
খ. ভিটামিন ‘বি’
গ. ভিটামিন ‘সি’
● ভিটামিন ‘ডি’

২৯. অতি শৈশবে শিশুকে প্রতিদিন সকালে কমপক্ষে কত মিনিট সূর্যের আলোতে রাখতে হবে?
ক. ২০ মিনিট
খ. ২৫ মিনিট
● ৩০ মিনিট
ঘ. ৩৫ মিনিট

৩০. ভিটামিন ‘ই’-এর রাসায়নিক নাম কী?
ক. অস্টিওম্যালাসিয়া
● টোকোফেরল
গ. জেরোপথ্যালামিয়া
ঘ. ক্যারাটোম্যালেসিয়া

৩১. গর্ভাবস্থায় ভ্রূণের বৃদ্ধিতে কোন ভিটামিন সহায়তা করে?
● ভিটামিন ‘ই’
খ. ভিটামিন ‘কে’
গ. ভিটামিন ‘এ’
ঘ. ভিটামিন ‘সি’

৩২. কোন ভিটামিন লোহিত কণাগুলোকে জারণের হাত থেকে রক্ষা করে?
ক ভিটামিন ‘এ’
খ. ভিটামিন ‘বি’
গ. ভিটামিন ‘সি’
● ভিটামিন ‘ই’

৩৩. ভিটামিন ‘ই’-এর উৎস হচ্ছে—
● তেলবীজ
খ. সূর্যকিরণ
গ. সরিষার তেল
ঘ. ডিমের কুসুম

৩৪. ভিটামিন ‘বি’ কয়টি ভিটামিনের একত্রিত সমাবেশ?
ক. ১০টি
খ. ১২টি
গ. ১৩টি
● ১৫টি

৩৫. দেহকোষে শর্করার বিপাকের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে—
● থায়ামিন
খ. প্রোটিন
গ. কার্বোহাইড্রেট
ঘ. মিউকাস

৩৬. গ্লুকোজ জারণের ফলে শক্তি উৎপন্ন হয়—
● দেহকোষে
খ. ক্ষুদ্রান্তে
গ. ত্বকে
ঘ. পেশিতে

৩৭. জারণ কাজের জন্য কী প্রয়োজন?
ক. শর্করা
খ. শ্বেতসার
● এনজাইম
ঘ. রিবোফ্লাবিন

৩৮. কোন ভিটামিন স্নায়ুকোষ ও হৃৎপিণ্ডের নিয়মিত কাজ নিয়ন্ত্রণ করে?
● ভিটামিন বা থায়ামিন ‘বি’
খ. ভিটামিন ‘সি’
গ. ভিটামিন ‘ডি’
ঘ. ভিটামিন ‘কে’

৩৯. গ্লুকোজে জারণের ফলে শক্তি উৎপন্ন হয়—
ক. রাতকানা
● বেরিবেরি
গ. হাম
ঘ. বসন্ত

৪০. বেরিবেরি রোগ কয় প্রকার?
● দুই
খ. তিন
গ. চার
ঘ. পাঁচ

৪১. বেরিবেরি রোগের প্রাথমিক লক্ষণ কোনটি?
ক. মাথাব্যথা
● হৃৎপিণ্ডের দুর্বলতা
গ. চোখে কম দেখা
ঘ. চর্মরোগ

৪২. রান্না করার সময় ভাতের মাড় ফেলে দিলে মাড়ের সাথে কী চলে যায়?
● থায়ামিন
খ. রিবোফ্লাবিন
গ. ক্যালসিয়াম
ঘ. ফসফরাস

৪৩. কোনটি ত্বকের সৌন্দর্য ও সজীবতা রক্ষা করে?
● রিবোফ্লাবিন
খ. ফসফরাস
গ. থায়ামিন
ঘ. ক্যালসিয়াম

৪৪. ভিটামিন বি-কমপ্লেক্সের অন্তর্ভুক্ত ভিটামিন হচ্ছে—
● নায়াসিন
খ. রিবোফ্লাবিন
গ. ফলিক এসিড
ঘ. থায়ামিন

৪৫. নায়াসিনকে কোন রোগ প্রতিরোধকারী ভিটামিন বলে?
ক. হাম
● পেলেগ্রা
গ. বেরিবেরি
ঘ. রিকেট

৪৬. মূত্র হিসেবে দৈনিক কী পরিমাণ পানি দেহ থেকে বের হয়?
ক. প্রায় ১ লিটার
● প্রায় ১.৫ লিটার
গ. প্রায় ২ লিটার
ঘ. প্রায় ২.৫ লিটার

৪৭. কোনটি দেহে কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে?
● পানি
খ. সোডিয়াম
গ. পটাসিয়াম
ঘ. ম্যাগনেসিয়াম

৪৮. কিসের অভাবে রক্তের তারল্য নষ্ট হয়?
● সোডিয়াম
খ. পানি
গ. ম্যাগনেসিয়াম
ঘ. পটাসিয়াম

৪৯. খাদ্যের মধ্যে অবস্থিত জৈব রাসায়নিক উপাদানগুলোকে কী বলে?
ক. জটিল
খ. সরল
গ. যৌগিক
● খাদ্য

৫০. খাদ্য উপাদানগুলোকে কত ভাগে ভাগ করা যায়?
ক. চার
খ. পাঁচ
● ছয়
ঘ. তিন

Answer Sheet


আরো দেখো: HSC গার্হস্থ্য বিজ্ঞান ১ম ও ২য় পত্রের সৃজনশীল প্রশ্ন উত্তর


শিক্ষার্থীরা, উপরে আমরা তোমাদের জন্য গার্হস্থ্য বিজ্ঞান ২য় পত্র ৯ম অধ্যায় mcq প্রশ্ন উত্তর শেয়ার করেছি। তোমাদের পরীক্ষার যেমন হবে, এটি সেই আলোকেই তৈরি করা হয়েছে। উপরে দেওয়া Answer Sheet অপশনে ক্লিক করে মডেল টেস্টের উত্তর সংগ্রহ করে নাও।

ডাউনলোড করতে অসুবিধা হলে আমাদের ফেসবুক পেজে ইনবক্স করো। আমরা আছি ইউটিউবেও। আমাদের YouTube চ্যানেলটি SUBSCRIBE করতে পারো এই লিংক থেকে।



Source link