Categories
Tips and Tricks

Galaxy S23 Ultra-র ফিচার প্রকাশ করল Samsung, ক্যামেরায় থাকবে এই বিশেষত্ব


Samsung Galaxy S23 Ultra Camera

স্যামসাং (Samsung) বর্তমানে তাদের পরবর্তী প্রজন্মের Galaxy S23 ফ্ল্যাগশিপ সিরিজটি বাজারে লঞ্চ করার জন্য জোরকদমে প্রস্তুতি নিচ্ছে। আগামী ১ ফেব্রুয়ারি আয়োজিত গ্যালাক্সি আনপ্যাকড ২০২৩ (Samsung Galaxy Unpacked 2023) ইভেন্টে এই লাইনআপে অন্তর্ভুক্ত Samsung Galaxy S23, Galaxy S23+ এবং Galaxy S23 Ultra- স্মার্টফোন তিনটির ওপর থেকে পর্দা সরানো হবে বলে নিশ্চিত করা হয়েছে। লঞ্চের তারিখ যত এগিয়ে আসছে স্যামসাং আপকামিং ফোনগুলির সম্পর্কে ইঙ্গিত দিচ্ছে এবং এগুলির স্ট্যান্ডআউট বৈশিষ্ট্যগুলি প্রদর্শন করছে। এরকমই একটি ফিচার হল Samsung Galaxy S23 Ultra-এর স্পেস জুম এবং নাইট মোড ক্ষমতা, যা সম্প্রতি একটি ইউটিউব শর্টস (YouTube Shorts) ভিডিওতে টিজ করা হয়েছে। আসুন বিস্তারিত জেনে নেওয়া যাক।

প্রকাশ্যে এল আসন্ন Samsung Galaxy S23 Ultra-এর নতুন ক্যামেরা ফিচার

স্যামসাং তাদের অফিসিয়াল ইউটিউব চ্যানেলে নতুন গ্যালাক্সি এস২৩ সিরিজ-কেন্দ্রিক কিছু শর্টস ভিডিও আপলোড করেছে। আর এই শর্টসগুলির মধ্যেই নির্দিষ্টভাবে দুটি ভিডিও আসন্ন সিরিজের দুটি নতুন ও অত্যাধুনিক ক্যামেরা ফিচারের বর্ণনা করেছে। মনে করা হচ্ছে, এগুলি হতে চলছে স্পেস জুম ও নাইট মোড। কেননা একটি ভিডিওতে চাঁদের স্পষ্ট ছবি এবং অপরটিতে রাতের আকাশে তারাবাজির দৃশ্য দেখানো হয়েছে, যা এই দুই বিশেষ বৈশিষ্ট্যগুলির দিকেই ইঙ্গিত করছে।

প্রসঙ্গত, স্মার্টফোন ক্যামেরার ক্ষেত্রে স্যামসাং সবসময়ই গুরুত্বপূর্ণ উদ্ভাবকের ভূমিকা পালন করেছে। এটা আন্দাজ করাই যায় যে, আসন্ন স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩ সিরিজের টপ-এন্ড “আল্ট্রা” মডেলটি তার পূর্বসূরিতে থাকা আকর্ষণীয় ক্যামেরা সেটআপ ও ফিচারের থেকেও উন্নততর ক্যামেরা বৈশিষ্ট্যগুলি অফার করবে।

সাম্প্রতিক একটি রিপোর্টে বলা হয়েছে যে, এটিতে ১২০ ডিগ্রি ফিল্ড-অফ-ভিউ এবং এফ/১.৪ অ্যাপারচার সহ একটি ১২ মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং সেইসাথে ৩x অপটিক্যাল জুম, এফ/২.৪ অ্যাপারচার ও অপটিক্যাল ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (OIS) সহ একটি ১০ মেগাপিক্সেলের টেলিফটো লেন্স অন্তর্ভুক্ত থাকবে। এছাড়া, ২০০ মেগাপিক্সেলের ISOCELL HP2 প্রাইমারি সেন্সরকে সাপোর্ট করার জন্য ১০x অপটিক্যাল জুম, ওআইএস এবং এফ/৪.৯ অ্যাপারচার সহ আরেকটি ১০ মেগাপিক্সেলের পেরিস্কোপ টেলিফটো লেন্স ব্যবহার করা হবে।

ডিভাইসটিতে ৩০ ফ্রেম প্রতি সেকেন্ড (FPS) হারে ৮কে (8K) ভিডিও রেকর্ডিং ক্ষমতা এবং ৬০ এফপিএস-এ ৪কে (4K) ভিডিও রেকর্ডিং ক্ষমতা থাকবে বলেও জানা গেছে। আর স্যামসাং গ্যালাক্সি এস২৩-এর সামনে এইচডিআর১০+ সাপোর্ট সহ ১২ মেগাপিক্সেলের একটি ফ্রন্ট-ফেসিং ক্যামেরা অবস্থান করতে পারে।

এছাড়াও, Galaxy S23 Ultra-এ ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট সহ ৬.৮ ইঞ্চির কোয়াড-এইচডি+ (৩,০৮৮ x ১,৪৪০) অ্যামোলেড (AMOLED) স্ক্রিন থাকবে। এর রিফ্রেশ রেট ১ হার্টজ থেকে ১২০ হার্টজ পর্যন্ত পরিবর্তিত হতে পারে। এর আগে একটি রিপোর্টে উল্লেখ করা হয়েছিল যে, Galaxy S23 Ultra-এর সর্বোচ্চ উজ্জ্বলতা ২,০০০ নিট-এ পৌঁছতে পারে। তবে, ব্রাইটনেসের মাত্রাটি পরে ১,৭৫০ নিট-এ সংশোধন করা হয়েছিল, যা এর পূর্বসূরির অনুরূপ।



Source link