Categories
Info

সমাজকর্ম ও অর্থনীতির মধ্যে পার্থক্য


সমাজকর্ম (Social Work):

সমাজকর্ম বলতে এমন একটি প্রাতিষ্ঠানিক ও পেশাদার সমাজসেবামূলক কর্মতৎপরতাকে বুঝায়, যা ব্যক্তি, দল, সমষ্টিকে এমনভাবে সাহায্য করে, যাতে তারা নিজেরাই নিজেদের সম্পদ, সামর্থ্য ও বুদ্ধিমত্তার দ্বারা নিজেদের সমস্যার সমাধান করতে সক্ষম হয়। সমাজকর্ম মূলত মানুষকে সাহায্য করার একটি পেশা। এটি ব্যক্তি, দল ও সমষ্টিকে এমনভাবে সাহায্য করে যাতে তারা নিজস্ব সামর্থ্য ও সম্পদের ব্যবহারের মাধমে নিজেরাই নিজেদের সমস্যার সমাধান করতে পারে।

এখানে উল্লেখ্য যে, সমাজকর্মের অস্তিত্ব এবং সমাজকর্মের কর্মকান্ড এক সামাজিক ব্যবস্থার ভিতর থেকেই পরিচালিত হয়। মূলত এ জন্যই সমাজকর্ম ও সমাজবিজ্ঞান পরষ্পর ঘনিষ্ঠভাবে সম্পর্কযুক্ত এবং সমাজবিজ্ঞানের জ্ঞান সমাজকর্মীকে তাদের পেশাগত দায়িত্ব পালনে সহায়তা করে যাতে করে তারা সাহায্যার্থীর কল্যাণে কার্যকরভাবে ভূমিকা রাখতে পারে।

অর্থনীতি (Economics):

অর্থনীতি শব্দটি ইংরেজি ‘Economics’ শব্দের প্রতিশব্দ। Economics শব্দটি গ্রিক শব্দ ‘Oikonomia’ থেকে উদ্ভূত যার অর্থ গৃহস্থালী পরিচালনা। এল.রবিন্স এর প্রদত্ত সংজ্ঞাটি বেশিরভাগ আধুনিক অর্থনীতির ক্ষেত্রে প্রযোজ্য। তিনি বলেন, “অর্থনীতি মানুষের অসীম অভাব ও বিকল্প ব্যবহারযোগ্য সীমিত সম্পদের সম্পর্ক বিষয়ক মানব আচরণ নিয়ে আলোচনা করে।” এল.রবিন্সের সংজ্ঞাটি বিশ্লেষণ করলে দেখা যায় যে এটি মানব জীবনের তিনটি মৌলিক বৈশিষ্টের উপর প্রতিষ্ঠিত, যথা অসীম অভাব, সীমিত সম্পদ ও বিকল্প ব্যবহারযোগ্য সম্পদ।

সমাজকর্ম ও অর্থনীতির মধ্যে পার্থক্যঃ

যে কোনো সমস্যা সমাধানে এবং সামাজিক উন্নয়নে অর্থনীতি মূল নির্ধারক হিসেবে কাজ করে। তাই সমাজকর্ম অর্থনীতিকে বাদ দিয়ে অগ্রসর হতে পারে না। অর্থনীতি ও সমাজকর্মের মধ্যে বেশ কিছু পার্থক্য রয়েছে। তা নিম্নরূপ-

১। অর্থনীতি মানুষের অসীম অভাব ও বিকল্প ব্যবহারযোগ্য সীমিত সম্পদের সম্পর্ক বিষয়ক মানব আচরণ নিয়ে আলোচনা করে। অন্যদিকে, সমাজকর্ম বলতে এমন একটি প্রাতিষ্ঠানিক ও পেশাদার সমাজসেবামূলক কর্মতৎপরতাকে বুঝায়, যা ব্যক্তি, দল, সমষ্টিকে এমনভাবে সাহায্য করে।

২। সমাজকর্মের পরিধি অর্থনীতির পরিধির চেয়ে ব্যাপক।

৩। অর্থনীতি মৌলিক বা তাত্ত্বিক সামাজিক বিজ্ঞান। অন্যদিকে, সমাজকর্ম অনুশীলনধর্মী সামজিক বিজ্ঞান।

৪। অর্থনীতি বস্তুগত চাহিদা নিয়ে আলোচনা করে। অন্যদিকে, সমাজকর্ম অবস্তুগত দিক নিয়েও আলোচনা করে।

৫। অর্থনৈতিক দৃষ্টিকোন থেকেই অনেক ক্ষেত্রে অর্থনীতির আলোচনা সীমাবদ্ধ। অন্যদিকে, সমাজকর্ম সমস্যা সমাধানে বহুমুখী দৃষ্টিভঙ্গির অবতারণা করে।

৬। সমাজকর্ম যতটা কল্যাণমুখী অর্থনীতি সকল ক্ষেত্রে ততটা কল্যাণমুখী নাও হতে পারে।





Source link