Categories
ফ্রিল্যান্সিং

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা গেলে কিভাবে ফিরিয়ে আনবেন?


বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা গেলে কিভাবে ফিরিয়ে আনবেন?

বর্তমানে আমরা প্রায় সবাই বিকাশ ব্যবহার করি। বিকাশের মাধ্যমে টাকা লেনদেন করে থাকি। আর এই লেনদেনের ক্ষেত্রে অনেক সময় ভুল হয়ে যায়। এক নাম্বারে টাকা পাঠাতে গিয়ে অন্য নম্বরে টাকা চলে যায়।

যদি আপনার বিকাশে সেন্ড করা টাকা অন্য কারো নাম্বারে চলে যায় তাহলে সেটা কিভাবে ফেরত আসবে আজকের ব্লগে বিস্তারিত প্রসেস জানাবো।

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা গেলে কিভাবে ফিরিয়ে আনবেন?

শুধু বিকাশ নয় নগদ বাহ রকেট সহ যেকোন মোবাইল ব্যাংকিং রয়েছে সেগুলোর ভুল করে টাকা চলে গেলে কিভাবে ফেরত আনা যায় আজকের এই ব্লগে সবগুলা প্রশ্নের উত্তর আলোচনা করব।

বিকাশে ভুল নাম্বারে টাকা গেলে কিভাবে ফিরিয়ে আনবেন?

ভুলে আপনার বিকাশের টাকা অন্য কারো নাম্বারে চলে গেলে আপনি সেই ব্যক্তিকে কখনোই ফোন দিবেন না।

আপনি সাথে সাথে যে কাজটি করবেন সেটা হচ্ছে আপনার নিকটস্থ থানায় চলে যাবেন। থানায় গিয়ে আপনি একটা জিডি করবেন। জিডিতে আপনার নাম্বার উল্লেখ করবেন এবং আপনি যে ট্রানজেকশন করেছেন সে ট্রানজেকশন নাম্বার উল্লেখ করবেন, কত টাকা পাঠিয়ে ছিলেন সেটা উল্লেখ করবে এবং যে ব্যক্তির নাম্বারে টাকা চলে গিয়েছে সে ব্যক্তির নাম্বারও সেখানে উল্লেখ করবেন। জিডিতে আপনার সবকিছু উল্লেখ থাকতে হবে স্পেশালী ট্রানজেকশন নাম্বারটা, যেটা মোটেও ভুল করা যাবেনা।

এখন এই জিডির কপি টা নিয়ে আপনাকে চলে যেতে হবে আপনার নিকটস্থ বিকাশের কাস্টমার কেয়ার রয়েছে সেখানে। সেখানে যাওয়ার পর আপনি যদি বিকাশের কাস্টমার কেয়ারের ব্যক্তির সঙ্গে সব কিছু খুলে বলেন যে, আপনার টাকাটা এই নাম্বারে পাঠাতে চেয়েছিলেন সেটা অন্য নাম্বারে চলে গিয়েছে। আমি জিডি করেছি এ হচ্ছে আমার জিডির কপি। তারপর বিকাশের কর্মকর্তারা যে কাজটি করবে আপনার এই জিডির কপি টা দেখবে এবং আপনার কাছে অনেক ইনফরমেশন জানতে চাইবে, যে আপনি লাস্ট কবে ট্রানজেকশন করেছিলেন, কি করেছেন এই সব ইনফরমেশন দিলে তারা যদি মনে করে আপনি রিয়াল তাহলে সাময়িকভাবে ওই ব্যক্তির একাউন্টটি তারা বন্ধ করে দিবে। 

মানে তার লেনদেন বন্ধ করে দেওয়া হবে। সে তার টাকা তুলতে পারবে না। সেই অবস্থায় বিকাশের প্রতিনিধিরা তাকে ফোন দিয়ে বলবে যে আপনার নাম্বারে ভুল করে টাকা চলে গিয়েছে একজনের।আপনি যদি মনে করে যে টাকাটা আপনার, ঠিক আছে তাহলে আপনাকে ক্লেম করতে হবে। টাকাটা যদি আপনার না হয় তাহলে আপনি বলেন আমরা টাকাটা ব্যাক করে দিয়ে দেব। যে ব্যাক্তি জিডি করেছে বা যে ব্যাক্তির টাকাটা ভুল করে আপনার কাছে চলে গিয়েছে তাকে। আর সে ব্যক্তিটি যদি বলে যে টাকাটা আমার তাহলে তাকে বলবে 7 কর্মদিবসের মধ্যে এসে আপনি প্রুফ করে আপনার টাকাটা নিয়ে যান। 

মানে প্রুপ করতে হবে। সে আসার পর বিভিন্ন ধরনের তথ্য যাচাই করবে যে কোন নাম্বার থেকে টাকা টি এসেছিল। এধরনের নানান কিছু জানতে চাইবে। সে ব্যক্তি যদি ফেক হয় তাহলে সে বলতে পারবে না যে কোন নাম্বার থেকে টাকা টা এসেছে। তখন তাকে টাকাটা দিবে না। তখন টাকাটা ব্যাক করে কিন্তু তাকে দিয়ে দেওয়া হবে অর্থাৎ যার নাম্বার থেকে টাকাটি চলে গিয়েছিল। আর সেই ব্যক্তি যদি সাত কর্মদিবসের মধ্যে না আসে তাহলে তারা এখন সাময়িকভাবে বন্ধ থাকবে এবং ছয় মাস অপেক্ষা করা হবে এই ছয় মাসের মধ্যে যদি ওই ব্যক্তি আসে এসে যদি সে প্রুফ করে নিয়ে যেতে পারে তাহলে নিয়ে যাবে আর না নিয়ে যেতে পারে কিংবা 6 মাসের মধ্যে যদি না আসে এই টাকাটা যে ব্যক্তি ভুলে পাঠিয়েছিল তার একাউন্টে কিন্তু টাকাটা প্রেরণ করা হবে।

এখন একটা প্রশ্ন হয়তো যে ভাই, এত ঝামেলা করে আমি টাকাটা কিভাবে নিব?

এটা আমার কোনো সিস্টেম না, বিকাশের সিস্টেম আপনাকে যদি টাকা নিতে হয় তাহলে এভাবে নিতে হবে ।

আবার অনেকে একটা প্রশ্ন করবেন যে ভাই আমি থানায় গিয়ে জিডি করবো। বিকাশের অফিসে যাবো এর মাঝখানে তো সে টাকা তুলে ফেলতে পারে। যদি সেই ব্যক্তি দুষ্টু প্রকৃতির হয় তাহলে তো সে তুলে ফেলবে। কিন্তু একটা জিনিস মাথায় রাখেন আপনার এই প্রচেষ্টা করতে হয়তো বা দুই ঘন্টা সময় লাগতে পারে। কিন্তু এই দুই ঘণ্টায় একটি দুষ্টু প্রকৃতির লোক হলেও বুঝতে পারবেনা টাকাটা কোথায় থেকে এসেছে বা রং নাম্বার থেকে এসেছে কিনা, যদি আপনি ফোন দিয়ে না ইনফর্ম করেন। এই সুযোগে তার অ্যাকাউন্ট টা কিন্তু আপনি সাময়িকভাবে বন্ধ করে দিতে পারছেন। সে যদি দুষ্টু প্রকৃতিরও হয়, তাহলেও কোন সমস্যা নেই। কারণ সাময়িক তার অ্যাকাউন্ট টা তো বন্ধ করে দিচ্ছেন আপনি। সে আর লেনদেন করতে পারছে না । আপনি বিষয়টি যদি একেবারে ছেড়ে দেন তাহলে তো আর কিছু করার নেই। তাহলে সেতো টাকা তুলে ফেলবে বা 4 ঘন্টা 5 ঘন্টা অপেক্ষা করবে।

আরেকটা জিনিস হচ্ছে একজনের ফোনে টাকা আসলেই কিন্তু সাথে সাথে ভুলে আসছে ভেবে টাকাটা তুলে ফেলে এমনটা না। টাকা তোলার জন্য একটা সময়-সুযোগের ও ব্যাপার রয়েছে। যাই হোক এতক্ষণ প্রচেষ্টা বললাম। এই নাম্বারে যদি একাউন্ট থাকে তাহলে টাকাটা চলে যাবে। আর যদি ভুল নাম্বারে টাকা চলে গেল সেই নাম্বারে বিকাশ একাউন্ট খোলা না থাকে তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি যে কাজটা করবেন আপনি যদি কোন অ্যাপস থেকে পাঠিয়ে থাকেন তাহলে দেখবেন অ্যাপস এর পাশে কিন্তু ক্যানসেল নামে একটা অপশন রয়েছে। সেই ক্যানসেল এ  ক্লিক করলে কিন্তু দেখবেন যে ক্যান্সেল হয়ে গেছে এবং টাকাটা আপনার একাউন্টে ফেরত চলে আসছে।

এখন প্রশ্ন হচ্ছে আপনি ক্যানসেল করলেন না সেই ব্যক্তি যদি বিকাশের একাউন্ট খুলে ফেলে তাহলে টাকাটা তার এখানে চলে যাবে। আর সে ব্যাক্তি যদি তিন দিনের মধ্যে একাউন্ট না খুলে আর আপনিও যদি তিন দিনের মধ্যে ক্যানসেল না করেন তাহলে কিন্তু টাকাটা অটোমেটিক আপনার এখানে চলে আসবে।

অন্যান্য যে মোবাইল ব্যাংকিং গুলো রয়েছে সেগুলোতে ভুল করে টাকা চলে গেলে কিভাবে ফেরত আনবেন?

আসলে সেই গুলাতে এরকম বিকাশের মতো কোনো সিস্টেম নেই ফেরত আনার। তারা বলে ভুল করে টাকা চলে গেলে তাদের কিছু করার নাই। এক্ষেত্রে আপনি যার কাছে চলে গিয়েছে তাকে ফোন করে বলতে পারেন যে টাকাটা যেন ফেরত দেয়। যদি পাঠায় তাহলে পাবেন আর যদি না পাঠাও তাহলে পাবেন না। আর কিছু করার নেই।



Source link