Categories
Tips and Tricks

2022-এ বড় সাফল্য, জাপানকে হারিয়ে বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম গাড়ি বাজারে পরিণত হল ভারত


করোনা অতিমারির প্রকোপে একটানা দু’বছর অর্থনীতির চাকা স্তব্ধ থাকার পর, গত বছর থেকে তা সচল হতে শুরু করেছে। যার প্রত্যক্ষ প্রভাব পড়েছে ভারতের গাড়ি শিল্পে। একলাফে বিশ্বের চতুর্থ বৃহত্তম গাড়ি বাজার থেকে তৃতীয় স্থানে উন্নীত হয়েছে । ২০২২-এ গাড়ি বিক্রিতে সূর্যোদয়ের দেশ জাপানকেও পেছনে ফেলেছে ভারত। সংবাদ সংস্থা নিক্কেই এশিয়ার প্রতিবেদন অনুযায়ী গত বছর ভারতে প্রায় ৪২.৫ লক্ষ গাড়ি বিক্রি হয়েছে। যেখানে জাপানে গাড়ি বিক্রির পরিমাণ প্রায় ৪২ লক্ষ।

২০২২-এর জানুয়ারি থেকে নভেম্বর পর্যন্ত ভারতে মোট ৪১.৩ লক্ষ গাড়ি গ্রাহকদের ডেলিভারি দেওয়া হয়েছে। এদিকে ডিসেম্বরে মারুতি সুজুকির বিক্রির পরিসংখ্যান ধরলে এই সংখ্যাটি প্রায় ৪২.৫ লক্ষে পৌঁছায়। যদিও বছরের শেষ ত্রৈমাসিকে বাণিজ্যিক গাড়ির বিক্রির পরিসংখ্যান যোগ করলে মোট বিক্রিত যানবাহনের সংখ্যা আরও বৃদ্ধি পাবে বলেই আশা করা যায়।

২০২১-এ ২.৬২ কোটি গাড়ির বিক্রির মাধ্যমে সর্বাধিক গাড়ি বিক্রিত দেশের তালিকার শীর্ষস্থান ধরে রেখেছিল চীন। আমেরিকায় বিক্রি হয়েছিল ১.৫৪ কোটি। ৪৪.৪ লক্ষ গাড়ি বিক্রির মাধ্যমে তালিকার তৃতীয় স্থানে জায়গা করে নিয়েছিল জাপান। তবে এ বছর তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে ভারত।

নিক্কেই জানিয়েছে, ২০১৮-তে ভারতে ৪০.৪ গাড়ি বিক্রি হয়েছিল। এবং ২০১৯-এ গাড়ির বিক্রি কমে ৪০ লক্ষের নিচে নেমে আসে। ১৪০ কোটির দেশ ভারত এ বছরই জনসংখ্যার দিক থেকে চীনকে ছাপিয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে। ২০৬০ সালের সূচনা পর্যন্ত জনসংখ্যায় এই উত্থান জারি থাকবে। যদিও মানুষের উপার্জনের পরিমাণও বৃদ্ধি পাবে।

২০২১-এর পরিসংখ্যান অনুযায়ী মাত্র ৮.৫% ভারতীয় ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহার করেন। যদি উপার্জন বৃদ্ধি পায়, তবে নিজস্ব গাড়ি ব্যবহারের প্রবণতা ভবিষ্যতে আরও বাড়বে বলেই আশা করা যায়। ২০২১ সালে জাপানে ৫.৬ শতাংশ মানুষ গাড়ি কেনায় মোট বিক্রিত গাড়ি দাঁড়িয়েছিল ৪২,০১,৩২১ ইউনিটে।



Source link