Categories
Mobile Mobile price BD

Royal Enfield থেকে Bajaj-Triumph জুটি, আপনার মন জিততে 2023-এ লঞ্চ করবে এই বাইকগুলি


কোভিডের ধাক্কা কাটিয়ে বিশ্ববাজার ছন্দে ফেরার চেষ্টা করছে। অর্থনৈতিক বৃদ্ধি হচ্ছে গুটিগুটি পায়ে। সেই সাথেই বিভিন্ন শিল্পে বেড়েছে বিনিয়োগ। গত বছর টু-হুইলারের জগত দেখেছে Royal Enfield Hunter 350 কিংবা Pulsar P150 এবং TVS Ronin-র মত বাইকের আগমন। আবার চলতি বছরেও সেই ছন্দ বজায় রেখে ধামাকা লঞ্চ হতে চলেছে গোটা বছরজুড়ে। ২০২৩-র জন্য অপেক্ষা করে রয়েছে বেশ কিছু নতুন চমক। কোন কোন বাইক এই বছরে লঞ্চ হবে তারই মধ্যে বহু প্রতীক্ষিত পাঁচটি মোটরসাইকেল সম্পর্কে আলোচনা থাকল এই প্রতিবেদনে।

Royal Enfield Meteor 650

দেশে ও বিদেশে ২০২২ সালে রয়্যাল এনফিল্ড এর এই প্রিমিয়াম ক্রুজার মোটরবাইকের ঝলক দেখলেও আনুষ্ঠানিক লঞ্চ কিন্তু হবে এই বছরেই। একবার লঞ্চ হলেই বাইকটির বুকিং এবং ডেলিভারি দেওয়ার কাজ কর্ম শুরু হবে। ৬৫০ সিসি প্লাটফর্মের উপর নির্মিত ইউএসডি ফর্ক, এলইডি হেড লাইট সহ বেশ কিছু আধুনিক সরঞ্জাম রয়েছে এতে। সম্ভবত চলতি মাসেই লঞ্চ করবে ৩.৫০ লাখ টাকা (সম্ভাব্য এক্স শোরুম) মূল্যের মিটিয়র ৬৫০।

Royal Enfield Himalayan 450

২০২৩ সালে আসতে চলা নতুন সব চমকের মধ্যে অন্যতম হতে চলেছে ৪৫০ সিসির সেগমেন্ট। KTM 390 এর ঘাড়ে নিশ্বাস ফেলতে এবার আসছে রয়্যাল এনফিল্ড এর অন্যতম অত্যাধুনিক বৈশিষ্ট্য সম্বলিত হিমালয়ান ৪৫০। লিকুইড কুলিং প্রযুক্তি সহ সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন থাকবে এতে। সম্পূর্ণভাবে অফ রোডে চলার উপযুক্ত এই বাইকটির সম্ভাব্য এক্স শোরুম মূল্য ২.৮ লাখ টাকা হতে পারে। চলতি বছরের আগস্ট মাস নাগাদ ভারতের রাস্তায় দেখা পাওয়া যেতে পারে এটির।

Hero Xpulse 400

সাশ্রয়ী মূল্যে অফ-রোড স্পেশাল বাইকের কথা বললেই তালিকায় প্রথমেই নাম আসে হিরো এক্সপালসের। এবার জনপ্রিয় এই বাইকের বৃহৎ সংস্করণ লঞ্চ করতে চলেছে হিরো মটোকপ্র। ৪২১ সিসির লিকুইড কুল্ড সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন একে চালিকা শক্তি যোগাবে। BMW G 310 GS-র মতো পারফরম্যান্স দিতে না পারলেও ডাকার র‌্যালি থেকে প্রাপ্ত অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়েই সম্পূর্ণভাবে অফ-রোডে চলার উপযুক্ত করেই বাজারে আনা হচ্ছে Xpulse 400 কে। সম্ভবত চলতি বছরের দ্বিতীয়ার্ধে অফিসিয়াল লঞ্চ হবে এই বাইকটির। দাম হতে পারে ২.৫ লাখ থেকে ২.৭ লাখের মধ্যে।

Triumph-Bajaj Roadstar and Scrambler

২০২২ সালেই বাজাজ ও ট্রায়াম্ফ যৌথভাবে চলার প্রতিশ্রুতি বদ্ধ হয়েছিল। আর সংঘবদ্ধভাবে তারা এবার আনতে চলেছে তাদের প্রথম রোডষ্টার এবং স্ক্র্যাম্বলার বাইক। বাস্তবিক ক্ষেত্রে Triumph Street Twin এবং Triumph Street Scrambler এই দুটি বাইকের চেয়ে সামান্য ছোট সংস্করণের মডেল হতে চলেছে এটি। ২৫০-৩৫০ সিসির সক্ষমতা যুক্ত লিকুইড কুল্ড সিঙ্গেল সিলিন্ডার ইঞ্জিন ব্যবহার করা হয এতে। ইতিমধ্যেই পুনের বিভিন্ন জায়গায় এই বাইকটির টেস্ট হতে দেখা গিয়েছে। চলতি বছরের শেষের দিকে লঞ্চ হতে চলা বাজাজ ও ট্রায়াম্ফের এই স্ক্র্যাম্বলার বাইকটির এক্স শোরুম মূল্য ২.৫ লাখ টাকার আশেপাশে হবে বলে অনুমান।

2023 KTM 390 Duke

২০১৩ সালে পদার্পণ করা এবং ২০১৭-তে সেকেন্ড জেনারেশন আপডেট লাভ করা KTM 390 Duke বাইকটির তৃতীয় প্রজন্মের সংস্করণ লঞ্চ করতে চলেছে চলতি বছরেই। প্রথমত এই আপডেটে যুক্ত হবে ৩৭৩ সিসি থেকে ৩৯৯ সিসির বৃহত্তর ইঞ্জিন যা অতিরিক্ত শক্তি এবং টর্ক প্রদান করবে। এমনকি বদলাতে পারে এর সাসপেনশন সেটআপও। ২০২৩-র এই আপডেটেড ভার্সনে হয়তো থাকতে পারে অ্যাডজাস্টেবল সাসপেনশন। সম্ভবত চলতি বছরের শেষে লঞ্চ করা নতুন এই সংস্করণে একগুচ্ছ বৈশিষ্ট্যের সংযুক্তিকরনের পাশাপাশি দাম বাড়বে বেশ খানিকটা। এর আনুমানিক মূল্য থাকবে ৩.৫ লাখ টাকা।



Source link