Categories
স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা

মিষ্টি আলুতে বোয়ালখালীর কৃষকদের মিষ্টি হাসি!


মিষ্টি আলুতে বোয়ালখালীর কৃষকদের মিষ্টি হাসি!

চট্টগ্রামের বোয়ালখালীতে মিষ্টি আলুর বাম্পার ফলনে কৃষকের মুখে হাসি ফুটেছে। এই উপজেলার নদীর তীরে জেগে উঠা চরে কৃষকরা মিষ্টি আলুর আবাদ করছেন। চাষে খরচ কম ও বাজারে বেশ চাহিদা থাকায় কৃষকরা মিষ্টি আলু চাষ করে লাভবান হতে পারেন। তাই এই উপজেলার নদীর চরের কৃষকরা মিষ্টি আলু সহ বিভিন্ন শাক-সবজি চাষে ঝুঁকছেন।

জানা যায়, কর্ণফুলী নদীর বুকে জেগে থাকা নাজিরার চরে উপজেলার শ্রীপুর, খরণদ্বীপ ও জৈষ্ঠ্যপুরা গ্রামের বাসিন্দারা মিষ্টি আলু সহ বিভিন্ন সবজির চাষাবাদ করেন। চরের প্রায় ১০০ একর জায়গা জুড়ে মিষ্টি আলু, ক্ষীরা, ফুলকপি, বাঁধাকপি, মরিচ, করলা, সিম, মিষ্টিকুমড়া, বেগুন, টমেটোসহ বিভিন্ন শাক-সবজি চাষ করা হচ্ছে।

সরেজমিনে দেখা যায়, চরের জমি গুলোতে সবুজের সমারোহ। কৃষকরা বিশালাকৃতির চরের বুকে ক্ষীরা, করলা, মিষ্টি আলু, মিষ্টিকুমড়া, মরিচসহ বিভিন্ন সবজির আবাদ করছেন।

উপজেলার খরণদ্বীপ গ্রামের মো. শহীদুল আলম বলেন, আমি প্রতি বছরের মতো এবছরও নাজিরার চরে ১২০ শতক জমিতে মিষ্টি আলু সহ অন্যান্য আরো সবজির আবাদ করেছি। অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর সার-বীজ, মজুরিসহ সব কিছুরই দাম বাড়তি রয়েছে। আশা করছি জমিতে মিষ্টি আলুর ভালো ফলন হবে।

কৃষক মো. আমান উল্লাহ বলেন, আমি চরে মিষ্টি আলুর পাশাপাশি বেগুন ও টমেটো চাষ করেছি। সবজি গুলোর ভালো করে পরিচর্যা করেছি। তাই ভালো ফলন পেয়েছি। ইতিমধ্যে এক বিঘার আলু তুলে বিক্রি করেছি। বাজারে মিষ্টি আলুর দাম ভালো পাওয়ায় লাভবান হতে পেরেছি।

স্থানীয় আরো কৃষকরা বলেন, নাজিরার চরে নদী ভাঙনরোধে ব্লক তৈরি করা হয়েছিল। তখন আমাদের চাষাবাদ বন্ধ ছিল। বর্তমানে কৃষকরা আবার চাষাবাদ শুরু করেছেন। মিষ্টি আলু সহ বিভিন্ন শাক-সবজির চাষে করে লাভবান হতে পারছেন।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ মো.আতিক উল্লাহ বলেন, কৃষকদের সার্বিক সহযোগিতা করার জন্য আমরা আমাদের কর্মকর্তাদেরকে নির্দেশ দিয়েছি। তারা মাঠ পর্যায়ে কৃষকদের পরামর্শ দিচ্ছেন।

উপ-সহকারী কৃষি কর্মকর্তা সৌমিত্র দে বলেন, নাজিরার চরের কৃষকরা সারাবছর ধরেই বিভিন্ন শাক-সবজির চাষ করে থাকেন। তার মধ্যে মিষ্টি আলুর চাষ বেশি করে থাকেন। নাজিরার চরে কন্দাল উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় দেশিয় উন্নত জাতের মিষ্টি আলুর চারটি প্রদর্শনী দেওয়া হয়েছে। মিষ্টি আলু একটি পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ ও উচ্চ ফলনশীল দেশিয় সবজি। অল্প খরচে ও কম পরিচর্যায় বেশি ফলন এবং অধিক লাভ হওয়ায় মিষ্টি আলু চাষে আগ্রহ বেশি এ অঞ্চলের কৃষকদের। আমরা কৃষকদের সার্বিকভাবে সহযোগিতা করছি।



Source link