Categories
News

ভিডিওটি মিশরে মিলাদুন্নবী উদযাপনকে বিদআত বলায় মারধরের নয়


সম্প্রতি “মিশরে টকশোতে এসে মিলাদুন্নাবীﷺ উদযাপনকে বিদআত বলেছিলো!!! #শানে রাসূলে এমন বিয়াদবির প্রতিবাদ স্বরূপ তৎক্ষনাৎ টকশোতেই কিল-ঘুষি থেরাপি শুরু” শীর্ষক দাবিতে একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচার করা হচ্ছে। 

ফেসবুকে প্রচারিত এরকম কিছু ভিডিও দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ভিডিওগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। 

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, আলোচিত ভিডিওটি মিশরে টকশোতে এসে ঈদে মিলাদুন্নবীকে বিদআত বলায় মারধরের নয় বরং এটি স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য সম্পর্কিত একটি চ্যানেলের ব্যাঙ্গাত্মক অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত একজন অতিথি কর্তৃক ক্ষিপ্ত হয়ে একজন উপস্থাপককে মারধরের ভিডিও।

রিভার্স ইমেজ সার্চের মাধ্যমে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইউটিউবের حسام الشرقاوي – Hosam El Sharkawy নামের একটি চ্যানেলে ২০১৯ সালের ৪ এপ্রিল “رجل صعيدي يضرب مذيع بالتربيزه على الهواء” (অনুবাদ: একজন সম্ভ্রান্ত ব্যক্তি সম্প্রচার চলাকালে সম্প্রচারকারীকে প্রহার করছে) শীর্ষক শিরোনামে মূল ভিডিওটি খুঁজে পাওয়া যায়।

ভিডিওটির বিস্তারিত বিবরণী থেকে জানা যায়, এটি মিশরের জনপ্রিয় শিল্পী হোসাম আল-শারকাভির সঞ্চালনায় গোপন ক্যামেরায় ধারণকৃত একটি ভিডিও। ভিডিওটির বিস্তারিত বিবরণীতে আর কোনো তথ্য উল্লেখ করা হয়নি।

তবে পরবর্তীতে মিশরের Cairo24.com নামের একটি অনলাইন পোর্টালে ২০১৯ সালের ২৬ মে ‘ “Close your nose, my savage” .. Saedi assaults a guest on a table on one of the satellite channels (video)‘ শীর্ষক শিরোনামে আরবি ভাষায় প্রকাশিত একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

এই প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায়, স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য সম্পর্কিত একটি চ্যানেলের ব্যাঙ্গাত্মক অনুষ্ঠানে একজন অতিথি ও উপস্থাপকদের মধ্যে হাতাহাতি হয়েছে। এই প্রোগ্রামটি আয়োজন করা হয়েছিল কৃষিখাতে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করার উদ্দেশ্যে। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে আমন্ত্রিত অতিথি ক্ষিপ্ত হয়ে উপস্থাপকদের একজনকে মারেন। 

এছাড়া সাড়ে তিন মিনিটের পুরো ভিডিওটিতে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ব্যক্তিদের অঙ্গভঙ্গি দেখেও নিশ্চিত হওয়া যায়, এটি একটি ব্যাঙ্গাত্মক অনুষ্ঠান।

মূলত, মিশরে টকশোতে এসে ঈদে মিলাদুন্নবীকে বিদআত বলায় মারধরের দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য সম্পর্কিত একটি চ্যানেলের ব্যাঙ্গাত্মক অনুষ্ঠানের। ২০১৯ সালের ৪ এপ্রিল মিশরের জনপ্রিয় শিল্পী হোসাম আল-শারকাভির সঞ্চালনায় গোপন ক্যামেরায় এই অনুষ্ঠানটি ধারণ করা হয়। মিশরীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, স্বাস্থ্য ও সৌন্দর্য সম্পর্কিত একটি চ্যানেলের ব্যাঙ্গাত্মক অনুষ্ঠানে একজন অতিথি ও উপস্থাপকদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এই প্রোগ্রামটি আয়োজন করা হয়েছিল কৃষিখাতে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিয়ে আলোচনা করার উদ্দেশ্যে। অনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে আমন্ত্রিত অতিথি ক্ষিপ্ত হয়ে উপস্থাপকদের একজনকে মারেন। 

সুতরাং, মিশরে টকশোতে এসে ঈদে মিলাদুন্নবীকে বিদআত বলায় মারধরের দাবিতে প্রচারিত ভিডিওটি সম্পূর্ণ মিথ্যা। 

তথ্যসূত্র



Source link

Leave a Reply