Categories
News

মাছের আঁশ কি লিপস্টিকের প্রধান উপাদান?


সম্প্রতি “লিপস্টিকের প্রধান উপকরন হলো মাছের আঁশের গুড়া” শীর্ষক শিরোনামে একটি তথ্য সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত হচ্ছে।

ফেসবুকে প্রচারিত এমন কিছু পোস্ট দেখুন  এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। পোস্টগুলোর আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে দেখা যায়, লিপস্টিক তৈরীর প্রধান উপকরণ মাছের আঁশ নয় বরং কিছু কিছু লিপস্টিকে অতিরিক্ত উপাদান হিসেবে মাছের আঁশ ব্যবহার করা হয়।

কি-ওয়ার্ড সার্চের মাধ্যমে, যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্য বিষয়ক ওয়েবসাইট Webmd.com এ ২০১০ সালের ২৭ জুলাই প্রাকাশিত What’s in Lipstick? শিরোনামের একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from webmd website

প্রতিবেদনটি থেকে জানা যায় যে, লিপস্টিক তৈরীর মূল উপাদান তিনটি।

  • মোম
  • তেল 
  • পিগমেন্ট

পিগমেন্ট- হলো রঙ। লিপস্টিক কি রঙের হবে তা নির্ধারণ করা হয় পিগমেন্টের মাধ্যমে। মোম- লিপস্টিককে আকৃতি এবং ছড়ানো্র জন্য টেক্সচার প্রদান করে। এবং তেল – যেমন পেট্রোলাটাম, ল্যানোলিন, কোকো মাখন, জোজোবা, ক্যাস্টর এবং খনিজ লিপস্টিকে আর্দ্রতা যোগ করে।

পরবর্তীতে, যুক্তরাজ্যের বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক ম্যাগাজিন BBC SCIENCE MAGAZINE এ প্রকাশিত What’s in lipstick? | BBC Science Focus Magazine শিরোনামে একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

Screenshot from sciencefocus website

প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, লিপস্টিক তৈরীতে প্রয়োজনীয় উপাদান গুলোর অনুপাত হলো  মোম-৩০%, তেল ৬৫%, ডাইস ৫% ( মাছের আঁশ, পোকমাকড় থেকে উদ্ভুত)। তবে এই অনুপাতের সাথে অতিরিক্ত উপাদান- Guanine হিসেবে মাছের আঁশ ব্যবহার করা হয়। মাছের আঁশ লিপস্টিকে মুক্তার মত উজ্জ্বলতা প্রদান করে। তবে সব লিপস্টিকেই মাছের আঁশ ব্যবহার করা হয় এমন নয়। লিপস্টিকের ধরণ ভেদে উপাদানে ভিন্নতা আনা হয়। যেমনঃ ঠোঁটকে ফুলিয়ে তুলতুলে ভাব নিয়ে আসতে Capsaicin হিসেবে মরিচ ব্যবহার করা হয় অনেক লিপস্টিকে।

অন্যদিকে, ভারতীয় গণমাধ্যম FirstPost এ ২০১৬ সালের ২৫ এপ্রিল প্রকাশিত The Maneka Gandhi column: Snail mucus to placenta, your cosmetics are full of animal discard শিরোনামে একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়।

Screenshot from firstpost website

প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, লিপস্টিকসহ অন্যান্য আরো প্রসাধনী যেমনঃ বাথ প্রডাক্ট, হেয়ার কনডিশনার, নেলপলিশ ইত্যাদিতে  উজ্জ্বল্যতা নিয়ে আসতে Guanine ব্যবহার করা হয়। এবং এই Guanine নেয়া হয় মাছের আঁশ থেকে। 

এছাড়াও, Daily Mail এ ২০১৪ সালের ১৯ আগস্ট প্রকাশিত Lipstick’s bizarre ingredients revealed from chillies to insects | Daily Mail Online শিরোনামে একটি প্রতিবেদন খুঁজে পাওয়া যায়। 

প্রতিবেদন থেকে জানা যায় যে, একটি লিপস্টিকে প্রায় হাজারখানেক উপাদান থাকে যার মধ্যে কিছু থাকে ন্যাচারাল উপাদান এমনকি অনেক ক্ষেত্রে খাদ্যদ্রব্য ব্যবহার করা হয়। লাল লিপস্টিকে ব্যবহার করা হয় লাল বাগ।

মূলত, লিপস্টিক তৈরীর প্রধান উপকরণ হলোঃ মোম, তেল এবং পিগমেন্ট। এছাড়াও লিপস্টিকে ভিন্নতা নিয়ে আসতে অতিরিক্ত উপাদান হিসেবে Guanine,Capsaicin, Lead ইত্যাদি ব্যবহার করা হয়ে থাকে। লিপস্টিকে উজ্জ্বলতা প্রদান করে Guanine এবং এটি পাওয়া যায় মাছের আঁশ থেকে। লিপস্টিক তৈরীতে এর পরিমাণ খুবই সামান্য; মাত্র ৫%। লিপস্টিকে উজ্জ্বলতা নিয়ে আসার জন্য শতকরা মাত্র ৫ ভাগ পরিমানে মাছের আঁশ ব্যবহারকে লিপস্টিকের প্রধান উপাদান হিসেবে মাছের আঁশ ব্যবহার করা হয় দাবিতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে প্রচারিত হচ্ছে।

উল্লেখ্য, পূর্বে “একজন নারীর গড়ে জীবনে ২৭ কেজি লিপস্টিক খায়” দাবিতে তথ্য প্রচারিত হলে- তথ্যটি মিথ্যা প্রমাণ করে প্রতিবেদন প্রকাশ করে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, অতিরিক্ত উপাদান হিসেবে মাছের আঁশ ব্যবহারকে লিপস্টিকের প্রধান উপাদান মাছের আঁশ দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে; যা সম্পূর্ণ বিভ্রান্তিকর।

তথ্যসূত্র



Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published.