Categories
Tips and Tricks

শাওমি ২০০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ফোন আনতে যাচ্ছে?


শাওমি প্রতি বছর টি-সিরিজের স্মার্টফোন নিয়ে আসে তাদের ফ্ল্যাগশিপ ফোনকে টুইক করে। গতবছর শাওমি ১১টি ও এর আগের বছর মি ১০টি লাইন-আপ নিয়ে এসেছিলো শাওমি। ইতিমধ্যে শাওমি ১২টি সিরিজ নিয়ে অনেক গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।

WinFuture নামের এক জার্মান ওয়েবসাইটে শাওমি ১২টি সিরিজের রেন্ডার ও স্পেসিফিকেশন নিয়ে পোস্ট করা হয়েছে, যেখানে শাওমি ১২টি ও শাওমি ১২টি প্রো ফোন দুইটি রয়েছে। বলা হচ্ছে ফোন দুইটিতে মেটাল ফ্রেমের পরিবর্তে প্লাস্টিক থাকছে ও দুইটি ফোনের ক্যামেরা ডিজাইনও প্রায় একই ধরনের হবে। তবে দুইটি ফোনের মধ্যে সবচেয়ে বড় পরিবর্তন থাকবে এর ক্যামেরা স্পেসিফিকেশনে।

ফোন দুইটির অধিকাংশ ফিচার প্রায় একই ধরনের। ৬.৬৭ইঞ্চি ১২০হার্জ এমোলেড স্ক্রিন, ২০মেগাপিক্সেল সেলফি ক্যামেরা, ও ১২০ওয়াট ফাস্ট চার্জিং ফিচার ফোন দুইটির মধ্যেই রয়েছে। বলা হচ্ছে ফোনের বক্সেই থাকবে ১২০ওয়াট এর ফাস্ট চার্জার।

শাওমি ১২টি প্রো

শাওমি ১২টি প্রো এর নাম শুনেই বুঝতে পারছেন এটি প্রিমিয়াম সেগমেন্টের একটি অ্যান্ড্রয়েড ফোন। স্বভাবতই এই ফোনে স্ন্যাপড্রাগন ৮ প্লাস জেন ১ প্রসেসর থাকবে যা যেকোনো ব্যবহারকারীর জন্যই অনেক শক্তিশালী। শাওমি ১২টি প্রো ফোনটিতে ১২জিবি র‍্যাম ও ২৫৬জিবি স্টোরেজ থাকবে বলে জানা গেছে, তবে কিছু মার্কেটে ৮জিবি র‍্যাম ভ্যারিয়েন্টে পাওয়া যেতে পারে এই ফোন।

শাওমি ১২টি প্রো ফোনটির প্রধান আকর্ষণ হতে যাচ্ছে এর ২০০মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরা। তবে শাওমি ফোনে ২০০মেগাপিক্সেল ক্যামেরা এই প্রথম আসলেও ইতিমধ্যে মটোরোলা ফোনে আমরা এই ফিচার দেখেছি। WinFuture এর তথ্যে ফোনটিতে ওআইএস থাকবে কিনা জানানো হয়নি, তবে ফ্ল্যাগশিপ ফোন হিসেবে এই ফিচারটি থাকবে বলে ধারণা করা যায়।

২০০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরার ফোন আনতে যাচ্ছে শাওমি

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

২০০মেগাপিক্সেল মেইন ক্যামেরার পাশাপাশি ফোনটিতে ৮মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা ও ২মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর থাকবে বলে জানা গিয়েছে। ফোনটির সম্ভাব্য ৮৪৯ইউরো দাম বিবেচনা করলে এই ফোন থেকে ফ্ল্যাগশিপ লেভেল ফটোগ্রাফি আশা করাই যায়। 

শাওমি ১২টি

অন্যদিকে আরেকটি শাওমি মোবাইল অর্থাৎ শাওমি ১২টি ফোনটিও বেশ ভালো একটি ডিভাইস হলেও এটির কিছু বিষয় ১২টি প্রো এর চেয়ে কিছুটা ভিন্ন। এখানে লেটেস্ট স্ন্যাপড্রাগন প্রসেসরের পরিবর্তে রয়েছে মিড-রেঞ্জ মিডিয়াটেক ডাইমেনসিটি ৮১০০ প্রসেসর। এই চিপসেট স্ন্যাপড্রাগন ৮ প্লাস জেন ১ এর সমান শক্তিশালী না হলেও এটি বেশ ভাল মানের পারফরম্যান্স প্রদানে সক্ষম।

শাওমি ১২টি ও শাওমি ১২টি প্রো এর মধ্যে আরেকটি পার্থক্য হলো ২০০মেগাপিক্সেল ক্যামেরার পরিবর্তে শাওমি ১২টি তে রয়েছে ১০৮মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এছাড়া ৮মেগাপিক্সেল আলট্রাওয়াইড ক্যামেরা ও ২মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো ক্যামেরা এখানে থাকছে।

শাওমি ১২টি ফোনটিতে ৮জিবি র‍্যাম এবং ১২৮জিবি ও ২৫৬জিবি স্টোরেজ থাকবে, এর দাম হতে পারে ৬৪৯ইউরো। আপনি কোনটি পছন্দ করছেন? কমেন্টে জানান!

👉 ভিডিওঃ আইফোন ১৪ এবং ১৪+ সম্পর্কে বিস্তারিত জানুন

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published.