Categories
Tips and Tricks

গ্রামীণফোন সিম বিক্রি শুরু হলো সীমিত আকারে, দাম বেড়েছে


গত জুন মাসের শেষ দিকে গ্রামীণফোন সিম বিক্রিতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন, বিটিআরসি। ফলে জুন মাসের শেষ থেকেই গ্রামীণফোন নতুন সিম বিক্রি স্থগিত করে দেয়। বিটিআরসি যে কারণ দেখিয়ে জিপির ওপর এই নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল তা হচ্ছে গ্রামীণফোনের “সেবার মান সন্তোষজনক না হওয়া”।

এরপর অনেকেই গ্রামীণফোনের নেটওয়ার্ক নিয়ে বিভিন্ন অভিযোগ জানাতে শুরু করেন সোশ্যাল মিডিয়ায়, যা এর আগে আমাদের চোখে পড়েনি। এক সময় সবচেয়ে শক্তিশালী নেটওয়ার্কের অপর নাম ছিল গ্রামীণফোন। কিন্তু সেই জিপির নেটওয়ার্ক নিয়ে মানুষের এত অভিযোগ দেখে অবাক হয়ে যাই আমরাও। সিম বিক্রি স্থগিত হয়ে যাওয়ার পর জিপির পক্ষ থেকে আলোচনার মাধ্যমে এবং তাদের সর্বোচ্চ চেষ্টা দ্বারা বিষয়টি সমাধানের কথা শোনা যায়।

অবশেষে আড়াই মাস পরে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি এসে গ্রামীণফোন আবারও সিম বিক্রি শুরু করছে। যদিও এটা একদমই সীমিত আকারে শুরু হয়েছে যা মূলত আগে থেকে অনুমতিপ্রাপ্ত কিছু নম্বর। অর্থাৎ বিশেষ ব্যবস্থার ফলে কোম্পানিটি সীমিত আকারে সিম বিক্রি শুরু করতে যাচ্ছে। গ্রামীণফোনের কাস্টমার কেয়ার এবং কোম্পানিটির ভেরিফাইড ফেসবুক পেজ থেকে এই তথ্য জানা গেছে।

গ্রামীণফোনের ওয়েবসাইটেও এখন সিম বিক্রি সংক্রান্ত তথ্য দেখা যাচ্ছে। নিষেধাজ্ঞা শুরুর পরে গ্রামীণফোনের ওয়েবসাইটে সিম কেনার সেকশনে গেলে “No Matching Product Found” লেখা আসত। কারণ তখন সিম বিক্রি বন্ধ ছিল। কিন্তু এখন জিপির ওয়েবসাইটে সিম সেকশনে গেলে আবারও সিমের বিভিন্ন বর্ণনা দেখা যাচ্ছে। এমনকি অনলাইনে সিম অর্ডার করার অপশনও চালু হয়েছে।

শুরুতেই যেমনটি বলেছি, সীমিত আকারে গ্রামীণফোন সিম বিক্রি শুরু হয়েছে। এখন আপনার নিকটস্থ গ্রামীণফোন সেন্টার বা বিক্রয়কেন্দ্রে যোগাযোগ করে দেখতে পারেন তাদের কাছে জিপি সিম আছে কিনা। যেহেতু সিমের পরিমাণ সীমিত, তাই অনেক ক্ষেত্রে আপনি সিম নাও পেতে পারেন।

সিম বিক্রি স্থগিত হওয়ার আগে নতুন গ্রামীণফোন সিমের দাম ছিল ২০০ টাকা। কিন্তু এখন থেকে নতুন জিপি সিমের দাম হচ্ছে ৩০০ টাকা। গ্রামীণফোনের ওয়েবসাইট এবং ফেসবুক পেজে এই তথ্য দেখা গেছে। 

গ্রামীণফোন সিম বিক্রি শুরু হলো সীমিত আকারে, দাম বেড়েছে

🔥🔥 গুগল নিউজে বাংলাটেক সাইট ফলো করতে এখানে ক্লিক করুন তারপর ফলো করুন 🔥🔥

জিপির ফেসবুক পেজে বিভিন্ন কমেন্টে জানানো হয়েছে “গ্রাহকদের প্রয়োজন মেটাতে পূর্বে অনুমোদিত কিছু গ্রামীণফোন নম্বর এখন থেকে নির্দিষ্ট কিছু দোকানে পাওয়া যাবে। আপনি চাইলে বিক্রয় প্রতিনিধির কাছে একদম নতুন সিম (যা আগে কেউ কোনদিন ব্যবহার করেনি) এবং রিসাইকেল সিম, এই দুই ধরণের সিম ই ক্রয় করতে পারবেন। এই দুই ধরনের সিম আলাদাভাবে চিহ্নিত করার উপায় বিক্রয় প্রতিনিধির কাছে নেই। জানিয়ে রাখছি, গ্রামীণফোনের বিভিন্ন প্যাক / প্রোডাক্ট / সার্ভিস এর সুবিধা সরলীকরণ এর অংশ হিসেবে ১৬ সেপ্টেম্বর ২০২২ থেকে নতুন সিম এর মূল্য ৩০০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। বিস্তারিত জানতে ওয়েবসাইট ভিজিট করতে অনুরোধ করছি।”

আপনি কি নতুন গ্রামীণফোন সিম কিনতে আগ্রহী? জিপি মোবাইল নিয়ে আপনার অভিজ্ঞতা কমেন্টে জানান!

👉 ভিডিওঃ অনলাইন ইনকামের জন্য যে বিষয়গুলো জানা জরুরি

👉 আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করে সাথেই থাকুন। এখানে ক্লিক করে সাবস্ক্রিপশন কনফার্ম করুন!

[★★] প্ৰযুক্তি নিয়ে লেখালেখি করতে চান? এক্ষুণি একটি টেকবাজ একাউন্ট খুলে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি নিয়ে পোস্ট করুন! techbaaj.com ভিজিট করে নতুন একাউন্ট তৈরি করুন। হয়ে উঠুন একজন দুর্দান্ত টেকবাজ!





Source link

Leave a Reply