Categories
News

বিরিয়ানি খেতে চাননি বিটিএস সদস্য জিমিন


সম্প্রতি, “বিরিয়ানি খেতে চান বিটিএস সদস্য জিমিন” শীর্ষক শিরোনামে একটি প্রতিবেদন দেশীয় গণমাধ্যমের বরাতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে।

কী দাবি করা হচ্ছে?

গণমাধ্যমের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, “বিটিএস সদস্য জিমিন বিরিয়ানি খেতে চান। বিটিএস ভক্তদের জন্য এ এক দারুণ খবর। সম্প্রতি কোরিয়ান অ্যাপ ‘উইভার্স’ এ বিরিয়ানি খাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন বিটিএস এর জনপ্রিয় এ সদস্য। সেখানেই সম্প্রতি এক পোস্টে ‘কী খাওয়া যায়’ সে ব্যাপারে পরামর্শ নিচ্ছিলেন জিমিন। সেই পোস্টেই অসংখ্য ভক্তের মধ্যে এক ভক্ত জিমিনকে বিরিয়ানি খাওয়ার পরামর্শ দেন। পরামর্শের প্রতিক্রিয়ায় জিমিন তার জন্য বিরিয়ানি রান্না করে নিয়ে আসতে বলেন ওই ভক্তকে।

গণমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু প্রতিবেদন দেখুন – যমুনা টিভি (আর্কাইভ), দৈনিক বাংলা (আর্কাইভ), আমাদের সময়  (আর্কাইভ)।

ফেসবুকে ছড়িয়ে পড়া এমন কিছু পোস্ট দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে। আর্কাইভ ভার্সন দেখুন এখানে, এখানে, এখানে এবং এখানে

ফ্যাক্টচেক

রিউমর স্ক্যানার টিমের অনুসন্ধানে জানা যায়, বিটিএস সদস্য জিমিন বিরিয়ানি খেতে চাননি বরং তিনি এটিকে শুধু ভারতীয় খাবার বলে মন্তব্য করেছেন।

গণমাধ্যমে সূত্র হিসেবে উল্লিখিত কোরিয়ান সংগীতশিল্পী ও ভক্তদের যোগাযোগ প্লাটফর্ম উইভার্স (weverse) এ বিটিএস সদস্য পার্ক জিমিন (Park Ji-min) কর্তৃক গত ৪ সেপ্টেম্বর প্রকাশিত আলোচিত পোস্টটি (আর্কাইভ) খুঁজে পাওয়া যায়।

পোস্টে কোরিয়ান ভাষায় জিমিন লিখেছেন, “흐음 밥 뭐먹을까 고민중 여러분 밥 먹었어요?” বাংলায় অনুবাদ করলে এর অর্থ দাঁড়ায়, “হুমমম কি খাবো ভাবছি, তোমারা খেয়েছো তো?”

উক্ত পোস্টে রিফা (Rifa) নামে বাংলাদেশী এক বিটিএস ভক্ত ইংরেজি ও কোরিয়ান ভাষা ব্যবহার করে কমেন্টে লিখেন, “You can try Biriyani…이것은 매우 맛있다।” বাংলায় অনুবাদ করলে এর অর্থ দাঁড়ায়, “আপনি বিরিয়ানি ট্রাই করতে পারেন…এটি খুবই সুস্বাদু।” 

পরবর্তীতে উক্ত কমেন্টের রিপ্লে অপশনে কোরিয়ান ভাষায় জিমিন লিখেন, “인도 음식이구나।”  বাংলায় অনুবাদ করলে এর অর্থ দাঁড়ায়, “এটা ভারতীয় খাবার।”

নিজের দেওয়া পোস্টে পরবর্তীতে অসংখ্য ভক্তের বিভিন্ন খাবারের পরামর্শ পাওয়ার প্রেক্ষিতে জিমিন কোরিয়ান ভাষায় কমেন্ট করে লিখেন, “누가 해줬으며는 좋겠다아어어어 시켜먹으면 치우는 것도 귀찮아아아아아아아아아ㅏ아아아 “

বাংলায় অনুবাদ করলে এর অর্থ দাঁড়ায়, “যদি কেউ আমার জন্য এগুলো তৈরি করতো! খাবার অর্ডার করার পর তা পরিষ্কার করা খুবই বিরক্তিকর।”

অর্থাৎ, জিমিন বিরিয়ানি খেতে চেয়েছেন এমন কোনো তথ্য নেই তার কমেন্টে।

আন্তর্জাতিক একাধিক সংবাদমাধ্যমেও (Indian Express, Hindustan Times) জিমিনের বিরিয়ানি প্রসঙ্গে করা কমেন্ট নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ হতে দেখেছে রিউমর স্ক্যানার। কিন্তু কোনো প্রতিবেদনেই তিনি বিরিয়ানি খেতে চেয়েছেন এমন তথ্যের উল্লেখ নেই। 

মূলত, গত ৪ সেপ্টেম্বর বিটিএস সদস্য জিমিন কোরিয়ান অ্যাপ উইভার্সে দেওয়া এক পোস্টে ভক্তদের কাছ থেকে খাবার আইটেম সম্পর্কে পরামর্শ চান। পোস্টে এক বাংলাদেশী ভক্ত বিরিয়ানির কথা উল্লেখ করলে জিমিন সেই কমেন্টের রিপ্লেতে বিরিয়ানিকে ভারতীয় খাবার বলে উল্লেখ করেন৷ ঐ পোস্টে অসংখ্য ভক্তের খাবারের পরামর্শের প্রেক্ষিতে জিমিন খাবারগুলো কেউ তাকে তৈরি করে দেওয়ার প্রত্যাশা ব্যক্ত করেন৷ তিনি বিরিয়ানি খেতে চান এমন কোনো তথ্য উল্লেখ করেননি তার কমেন্টে৷ কিন্তু দেশীয় গণমাধ্যমের সূত্রে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে জিমিন বিরিয়ানি খেতে চেয়েছেন দাবিতে প্রচার করা হচ্ছে ; যা সম্পূর্ণ মিথ্যা।  

উল্লেখ্য, ২০১৩ সালের ১৩ জুন জে-হোপ, জিমিন, জিন, জ্যাংকক, আরএম, সুগা ও ভি—এই সাত সদস্য নিয়ে যাত্রা শুরু করে কোরিয়ান কে পপ ব্যান্ড বিটিএস। অল্প সময়ের মধ্যেই দুনিয়াজোড়া খ্যাতি কুড়িয়েছে ব্যান্ডটি। বিটিএস ভক্তরা নিজেদের আর্মি বলে পরিচয় দিয়ে থাকে।

প্রসঙ্গত, কোরিয়ান ব্যান্ড বিটিএসকে ঘিরে সাম্প্রতিক সময়ে বেশ কিছু গুজব ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষিতে সেসব বিষয়ে ফ্যাক্টচেক প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে রিউমর স্ক্যানার।

সুতরাং, বিটিএস সদস্য জিমিন বিরিয়ানি খেতে চেয়েছেন এমন দাবিটি মিথ্যা৷

তথ্যসূত্র



Source link

Leave a Reply