Categories
টেকনোলজি

Top Level Most Useful Gadget


গাইস প্রতিদিন আমরা অনেক ধরনের গ্যাজেট ইউস করে থাকি, গ্যাজেট আমাদের কাজকে ইজি করার সাথে সাথে আমাদের লাইফকে আরো অনেক বেশি এডভান্স বানিয়ে থাকে। দিনের শুরু থেকে রাত পর্যন্ত আমরা সবাই গ্যাজেট ইউস করে থাকি। আজকের গ্যাজেট সিরিজে জানতে চলেছেন Top Level Most Useful Gadget সম্পর্কে। নিয়মিত Awesome Gadgets, Latest Gadgets, Most Useful Gadgets, New Gadgets সম্পর্কে জানতে আমাদের সাথে জুড়ে থাকুন।

Filmatic

আজকের গ্যাজেট লিস্ট শুরু করবো একটি প্রোজেক্টার দিয়ে আর এটা সাইজে অনেক ছোট এবং আউটডোর প্রোজেক্টার। এটা একটি রিকোয়েস্টের গ্যাজেট, আপনার কোণো রিকোয়েস্টের গ্যাজেট থাকলে কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না। ঘরের মাঝে ইউস করার জন্য হয়তো আপনি ডিফ্রেন্ট টাইপের প্রোজেক্টার দেখে থাকবেন যা আউটডোরে ইউস করা পসিবল হয়ে উঠে না বাট এ মিনি প্রোজেক্টারের হেল্পে আপনি ইনডোর হোক বা আউটডোরে যেকোণো প্লেসের মাঝে মুভিস ভিডিওস বা আপনার অফিসিয়াল কাজ ইজিলি করতে পারবেন। এছাড়া এটার সাইজ এতোটাই ছোট হয়ে থাকে যে আপনি ইজিলি কেরি করতে পারবেন। সেই সাথে এ প্রোজেক্টার ওয়াটার প্রুফ এরফলে পানিতে নষ্ট হয়ে যাবে না এবং এটাকে আপনার স্মার্ট ফোন বা স্মার্ট ডিভাইসের সাথে কানেক্ট করে ইজিলি ইউস করতে পারবেন। অভার অল দেখা যায় প্রোজেক্টারটি ছোট হলেও এটার মাঝে মাল্টিপল ফিচার ইনজয় করতে পারবেন, ফ্ল্যাশ লাইট, স্পীকার আরো অনেক ফিচার। স্মার্ট এ মিনি গ্যাজেটটি প্রি-অর্ডার চলছে চাইলে আপনি প্রি-অর্ডার করতে পারেন।

Apexel 60X Telephoto Lens

নরমালি আমরা ফটো বা ভিডিও শুট করার জন্য বেশিরভাগ সময় ফোনের ক্যামেরা ইউজ করে থাকি বাট ফোনের ক্যামেরার মাঝে প্রোপার লেন্স না থাকায় ভিডিওর কুয়ালিটি ভালো হয় না, আর এজন্য আপনি ট্রাই করতে পারেন এ গ্যাজেট্টি, এটা একটি টেলিফোটো লেন্স। লেন্সটি ইজি টু ইউস আর সুপার পোর্টেবল এরফলে ইজিলি আপনার সাথে কেরি করতে পারবেন। গ্যাজেট্টিকে ফোনের মাঝে লাগানোর জন্য এটার সাথে আসা ক্লিপটি প্রথমে ফোনের মাঝে লাগিয়ে নিতে হবে, এরপরে লেন্সটি সেট করে দিলেই রেডি হয়ে যাবে প্রফেশনাল লেভেলের ফটোস বা ভিডিও শুট করার জন্য। এছাড়া যদি চান গ্যাজেট্টির সাথে এক টাইপড স্ট্যান্ডও ইউজ করতে পারেন কোমফোটের জন্য। স্মার্ট এ লেন্সটির হেল্পে আপনি সিক্সটি এক্স (60X) পর্যন্ত জুম করতে পারবেন যা অনেক জুম হয়ে থাকে। আপনি এ গ্যাজেট্টির হেল্পে যতোই জুম করেননা কেনো ফটো বা ভিডিওর মাঝে প্রপার সার্পনেস পেয়ে যাবেন। এমনটা মনে হবে যেনো ডিয়েসেলার ক্যামেরা দিয়ে ফটো ক্লিক করেছেন। ইভেন এ গ্যাজেট্টির হেল্পে মুনকেও জুম করে দেখতে পারবেন, বুঝতেই পারছেন এটা কতোটা জুম করতে পারে। গাইস এ ধরনের গ্যাজেট প্রফেশনাল লেভেলের ফটোস বা ভিডিওস শুট করার জন্য অনেক ইউজফুল হয়ে থাকে আর যদি আপনি স্মার্টফোন ইউজার হয়ে থাকেন তাহলে স্মার্ট এ গ্যাজেট্টি অনেক কাজে আসবে প্রফেশনাল ফটো বা ভিডিও শুট করার জন্য। আর যদি বলা হয় স্মার্ট এ লেন্সটির প্রাইসের কথা তাহলে দারাজ থেকে দশ হাজার নয়শ বেরাশি (১০৯৮২) টাকার মাঝেই পার্চেস করতে পারবেন, আর এটাকে গ্যাজেট লিস্টে অ্যাড করার কারন হচ্ছে এটা রিকোয়েস্টের গ্যাজেট।

E-Toothbrush

নরমালি আমরা দাথ ব্রাশ করার জন্য নরমাল ব্রাশের ইউজ করে থাকি যা আমাদের দাত বা টিথকে প্রপার ক্লিক করতে পারেনা, এজন্য আপনি ট্রাই করতে পারেন এ ইলেকট্রিক টুথব্রাশটি। ফাস্ট অফ অল এটা ই-ব্রাশ এরফলে এটাকে ইউজ করা অনেক ইজি, ফাস্ট পেস্ট অ্যাড করে ধরে রাখলেই ব্রাশ করা হয়ে যাবে। স্মার্ট এ ব্রাশটির হেল্পে আপনার টিথকে ডিপলি ক্লিন করতে পারবেন যা নরমাল ব্রাশে ক্লিক করা পসিবল না। ব্রাশটি সনিক ব্রাইবেশনের মাধ্যমে ওয়ার্ক করে থাকে যা ডিপলি ক্লিন করতে পারে। স্মার্ট এ ব্রাশটি ওয়াটার প্রুফ এরফলে পানি পরে নষ্ট হওয়ার জামেলা নেই, আর রিচার্জেবল হওয়ায় চার্জ শেষ হয়ে গেলে পুনরায় চার্জ করে ইউজ করতে পারবেন। ব্রাশটির মাঝে ডিফ্রেন্ট স্পিড ব্রাইবেট মুড পেয়ে যাবেন এরফলে আপনার প্রয়োজনের একোর্ডিং এটাকে ইউজ করতে পারবেন। অভার অল দেখা যায় এ ধরনের ব্রাশ বাচ্চাদের জন্য বা অলস পারসোনের জন্য অনেক কাজের ব্রাশ হয়ে থাকে, জাস্ট ইজি টু ইউজ। আর যদি বলা হয় এটার প্রাইসের কথা তাহলে দারাজ থেকে মাত্র তিনশ ঊননব্বই (৩৮৯) টকার মাঝেই পার্চেস করতে পারবেন, যা প্রাইসের দিক দিয়ে একদমি কম বলতে পারেন। সেই সাথে ব্রাশটির মাঝে এক্সট্রা দুটি ব্রাশহেড পেয়ে যাবেন।

God Of War Drone

গাইস আপনি যদি কম বাজেটের মাঝে ক্যামেরা ড্রোন খুজে থাকেন তাহলে দেখে নিতে পারেন এ ড্রোনটির আর এটার মাঝে আপনি মাল্টিপল ফিচার পেয়ে যাবেন। যদি বলা হয় ড্রোনটিকে ইউজের কথা তাহলে সিমপ্লি অন করে এটার সাথে আসা রিমোর্ট কন্ট্রোলারের সাথে কানেক্ট করে নিতে হবে, যখন ড্রোনটি কানেক্ট হবে ড্রোনের উপরের ব্লিংকিং লাইট গ্রিন হয়ে ব্লিং করা বন্দ করে দিবে। যদি চান আপনার ফোনের সাথে কানেক্ট করেও রিমোর্ট ছাড়া ড্রোনটিকে ফ্লাই করতে পারবেন। দ্যান রেডি হয়ে যাবে ফ্লাই করার জন্য। ড্রোনটির মাঝে দেওয়া হয়েছে একটি HD ক্যামেরা আর এটার হেল্পে আপনি ফটোস বা ভিডিওস ইজিলি শুট করতে পারবেন। এটা স্টিবিলিটির সাথে ফ্লাই করে থাকে এরফলে ইনডোর হোক বা আউটডোর আপনি ইজিলি ফ্লাই করতে পারবেন। ওয়ান কে টেকঅফ ফিচার, ল্যান্ডিং ফিচার, জাম্পিং মুড, থ্রি সিক্সটি ডিগ্রি ফ্লিপ মুড, এছাড়া আরো ফিচার এটার মাঝে পেয়ে যাবেন। ড্রোনটি রিচার্জেবল হওয়ায় চার্জ শেষ হয়ে গেলে পুনরায় চার্জ করে ফ্লাই করতে পারবেন, এরিয়াল ভিডিও শুট করতে পারবেন, ফটোস ক্লিক করতে পারবেন। অভার অল আপনার বাজেট যদি কম হয়ে থাকে আর যদি আপনি ক্যামেরা ড্রোন নিতে চান তাহলে এটা ট্রাই করতে পারেন। যদি বলা হয় ড্রোনটির প্রাইসের কথা তাহলে দারাজ থেকে মাত্র দুই হাজার আটশ পঞ্চাশ (২৮৫০) টাকার মাঝেই পার্চেস করতে পারবেন, যা প্রাইসের দিক দিয়ে একদম কম।

APEXEL 65mm Lens

গাইস যদি আপনি স্মার্টফোন ইউজার হন আর আপনার ফোনের ক্যামেরাকে আপডেট করতে চান তাহলে দেখে নিতে পারেন এ মিনি সাইজের স্মার্ট ক্যামেরা লেন্সটি। গ্যাজেট্টী ইউজ করা একদম ইজি সিমপ্লি ক্যামেরার মাঝে ক্লিপ এটাচ করে এরপরে লেন্সটি এটাচ করে নিলেই রেডি হয়ে যাবে ইউজের জন্য। গ্যাজেট্টী সিক্সটি ফাইফ এমেম লেন্স এরফলে এটার হেল্পে আপনি নেক্সট লেভেলের জুম করতে পারবেন, প্রফেশনাল লেভেলের ফটোস বা ভিডিওস শুট করতে পারবেন। আল্ট্রামুড পেয়ে যাবেন, প্রোট্রেট মুড পেয়ে যাবেন, আর এটার হেল্পে তোলা ফটো বা ভিডিও একদম নেক্সট লেভেলের হয়ে থাকে, ফুল সার্পনেস এটার মাঝে পেয়ে যাবেন। গ্যাজেট্টি সাইজে ছোট এরফলে ইজিলি কেরি করতে পারবেন, আর যখন প্রয়োজন হবে বের করে ইউজ করতে পারবেন। এ ধরনের গ্যাজেট ইউটিউবার, টিকটকার, ব্লগার বা প্রফেশনাল ভিডিও ক্রিয়েটারদের জন্য অনেক ইউজফুল হয়ে থাকে যারা স্মার্টফোনের হেল্পে ভিডিও শুট করে থাকে। আর যদি বলা হয় এটার প্রাইসের কথা তাহলে শপ জেট থেকে এক হাজার নয়শ পঞ্চাশ (১৯৫০) টাকার মাঝেই পার্চেস করতে পারবেন, প্রাইসের দিক দিয়ে মোটামুটি ঠিকঠাক বলতে পারেন কারণ এটা সিক্সটি ফাইভ এমেম লেন্স।

Spiderman Y20-2 Drone

গাইস যদি আপনার বাচ্চার জন্য বা আপনার নিজের জন্য একদম কম বাজেটের ড্রোন খুজে থাকেন তাহলে দেখে নিতে পারেন এ ড্রোনটি। ফাস্ট অফ অল ড্রোনট্রি মাঝে ইউজ করা হয়েছে কালারফুল LED লাইট ইফেক্ট যা দেখতে অনেক অ্যামেজিং লাগে, এরফলে এটাকে ছোট বাচ্চা হোক বা বড় যেকারো ইজিলি পছন্দ হয়ে যাবে। ড্রোনটিকে ইউজ করার জন্য সিমপ্লি কানেক্ট করে নিতে হবে এটার রিমোর্টের সাথে, দ্যান রেডি হয়ে যাবে ফ্লাই করার জন্য। এটাকে ইনডোর হোক বা আউটডোর ইজিলি ফ্লাই করতে পারবেন, থ্রি সিক্সটি ডিগ্রি ফ্লিপ মুড পেয়ে যাবেন, আর এটাকে ফুল্লি কন্ট্রোল করতে পারবেন এটার সাথে আসা রিমোর্টের হেল্পে। কালারফুল লাইট ইফেক্টের কারণে এটাকে রাতের সময়ও ফ্লাই করতে পারবেন। গাইস এ ধরনের কালারফুল ড্রোন বাচ্চা হোক বা বড় পারসোন ইজিলি পছন্দ হয়ে যাবে। আর যদি চান আপনার বাচ্চাকে গিফট হিসেবে দিতে পারেন। যদি বলা হয় এটার প্রাইসের কথা তাহলে বিডি স্টোল থেকে মাত্র দুই হাজার দুইশ নিরানব্বই (২২৯৯) টাকার মাঝেই পার্চেস করতে পারবেন।

গাইস আইহোপ আজকের Top Level Most Useful Gadget লিস্টি আপনাদের অনেক ভালো লেগেছে। নিয়মিত Awesome Gadgets, Latest Gadgets, Most Useful Gadgets, New Gadgets সম্পর্কে জানতে আমাদের সাথে জুড়ে থাকুন।





Source link

Leave a Reply

Your email address will not be published.